ঢাকা, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১
শিরোনাম

সাত দিন পার হলেও চুরি মামলার মূলহোতা ভাঙ্গারী আলাল গ্রেফতার হয়নি

  নির্মলেন্দু সরকার বাবুল, দূর্গাপুর প্রতিনিধি

-

প্রকাশ :  ২৭ মে ২০২৪, ০৭:৪৫ সকাল

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে চুরি মামলার ৭ দিন পার হলেও ভাঙ্গারী ব্যবসায়ী আলাল উদ্দিন (৫০) কে এখনো গ্রেফতার হয়নি। গত ১৮ মে এমদাদুল হক বাদী হয়ে ৩ জনকে অভিযুক্ত করে থানায় চুরির মামলা করেন। মামলার অন্য দুই আসামী সোহাগ ও শাকিব গ্রেফতার হলেও চোরকারবারীর মূলহোতা আলাল এখনো গ্রেফতার হয়নি।

অভিযোগ রয়েছে, আলাল প্রকাশ্যে ঘুরাফেরা করলেও তাঁকে গ্রেফতার করছে না পুলিশ।

মামলা সূত্রে জানা যায়, এমদাদুল হক রাজমিস্ত্রির কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে। সে দুর্গাপুর পৌরসভার বুরঙ্গা গ্রামের নুরু মিয়ার বাড়িতে গৃহ নির্মাণের কাজ করছিলো। গত ১৬ মে ঐ দিনের কাজ শেষ করে রাজমিস্ত্রি কাজের ব্যবহৃত সকল জিনিসপত্র নুরু মিয়ার বাসায় রেখে চলে আসে। এরপর ১৮ মে কাজের জন্য নুরু মিয়ার বাড়িতে গেলে এমদাদুল দেখতে পায় রাজমিস্ত্রি কাজে ব্যবহৃত সকল জিনিসপত্র চুরি হয়ে গেছে। যার আনুমানিক মূল্য ১৬ হাজার টাকা। পরবর্তীতে ১৭ মে চুরি যাওয়া মালামাল, ভাঙ্গারী ব্যবসায়ি আলাল মিয়ার দোকানে বিক্রি করেছে বলে জানায়, চোর চক্রের সদস্য সোহাগ ও তার সহযোগী সাকিব। পরে তাঁদের দেয়া তথ্যমতে আলাল ভাঙ্গারীর দোকান থেকে চুরি যাওয়া মালামাল উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়রা জানায়, মাদক সেবনের জন্য এসব মালামাল চুরি করে বিক্রি করেছিলো দুই কিশোর। সুযোগ বুঝে এসব মালামাল কম দামে কিনে নেয় আলাল ভাঙ্গারী। সে প্রথমে টোঁটা কাপড়ের ব্যবসা ও পরে ভাঙ্গারীর ব্যবসা করে
কোটিপতি বনে গেছেন। তাঁর বিরুদ্ধে অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে চোরাই মালামাল কেনা-বেচা করার জন্য। এ বিষয়ে বেশ কয়েকবার দেন-দরবার হলেও তার অভ্যাসের কোন পরিবর্তন হয়নি।

এ ব্যাপারে দুর্গাপুর থানার ওসি উত্তম চন্দ্র দেব জানান, চুরির বিষয়ে মামলা হয়েছে। আলাল কে ধরার জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এ ব্যপারে কোন ছার দেয়া হবে না।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত