২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে পূর্বধলায় দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

0
167

মোস্তাক আহমেদ খান : নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের আয়োজনে উপজেলার স্টেশন বাজারস্থ দলীয় কার্যালয়ে ২০০৪ সালে ২১ শে আগষ্টে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেত্রী শেখ হাসিনার জনসভায় গ্রেনেড হামলায় ২৪ জন নেতাকর্মী নিহত ও অসংখ্য নেতা-কর্মী আহত হওয়ার প্রতিবাদে নিহতদের আত্মার শান্তি কামনায় দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সকল শহীদদের আত্মার শান্তি কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

শনিবার (২১শে আগস্ট) রাতের প্রথম প্রহরে ১২টা ১মিনিটে মোমবাতি প্রজ্জ্বলনের মধ্যে দিয়ে শহীদদের স্মরণে ১মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। পরে বিকালে পূর্বধলা রেল স্টেশনে অবস্থিত দলীয় কার্যালয়ে দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ পূর্বধলা উপজেলা শাখার সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম সুজন।

একুশে আগস্ট এর প্রথম প্রহরে মোমবাতি জ্বালিয়ে প্রতিবাদ ও শহীদদের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন

আলোচনা সভায় আওয়ামীলীগ নেতা মিজানুর রহমান মুজিবুর’র সভাপতিত্বে এবং স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা শহীদুল ইসলাম আঙ্গুরের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম সুজন। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শেখ রাজু আহম্মেদ রাজ্জাক সরকার, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান বুলবুল, সানোয়ার হোসেন চৌধুরী, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আকাঈদুল ইসলাম, উপজেলা কৃষক লীগ নেতা এরশাদ হোসেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সারোয়ার হোসেন খোকন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা সৈয়দ হাসানুজ্জামান রাফি, সাদেকুল ইসলাম বাচ্চু, ওবায়দুল সরকার, কামরুল ইসলাম খান, রহমত আলী, সদর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি ফারুক আহমেদ প্রমূখ।

মোমবাতি জ্বালিয়ে আলু প্রজ্জ্বলনের মধ্য দিয়ে প্রতিবাদ

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন,২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলা মূলত ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের ধারাবাহিকতা, সেদিন খুনিদের মূল লক্ষ্য ছিল বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যা করা। আল্লাহর অশেষ রহমত ও মানুষের ভালবাসার কারণে তিনি প্রাণে বেঁচে ফিরেছেন। কিন্তু নারী নেত্রী আইভি রহমানসহ অনেককে আমরা হারিয়েছি। বক্তারা অবিলম্বে খুনি চক্রের মূল হোতা তারেক জিয়া সহ খুনিদের ফাঁসির দাবি জানান। এসময় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশে সারা দেশের ন্যায় পূর্বধলা উপজেলা ছাত্রলীগ ৭ ঘটিকায় মোমবাতি জ্বালিয়ে আলোক প্রজ্জ্বলনের মধ্যে দিয়ে প্রতিবাদ জানান।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন পূর্বধলা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম সুজন

পরে আলোচনা সভা শেষে কোরআন তেলাওয়াত করেন হাফেজ মুহাম্মদ এনামুল হক। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্টে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ সপরিবারে নিহত ও ২১শে আগষ্টের সকল শহীদ রুহের মাগফেরাত কামনা এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন ও সেহলা মাদ্রাসার মুহতামিম মাওঃ আহমদ হোসাইন পীর সাহেবের সুস্থতা কামনা করে দোয়া পাঠ করেন যুবলীগ নেতা হারুন অর রশিদ।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here