সাংহাইয়ে পেট্রোকেমিক্যাল কারখানায় আগুন, নিহত ১

0
53

আরবান ডেস্ক : চীনের সবচেয়ে বড় শহর সাংহাইয়ে রাষ্ট্রায়ত্ত সাইনোপ্যাক সাংহাই পেট্রোকেমিক্যাল কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে একজনের মৃত্যু হয়েছে। এটি দেশটির অন্যতম বৃহত্তম পরিশোধনাগার ও পেট্রোকেমিক্যাল কারখানা।
কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়ার খবরে বলা হয়, আজ শনিবার স্থানীয় সময় ভোররাত প্রায় চারটার দিকে শহরের দক্ষিণ-পশ্চিম উপকণ্ঠে জিনশান এলাকায় এ অগ্নিকাণ্ড ঘটে। সকাল নয়টার মধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। ‘তবে এটি ছিল একটি কঠিন কাজ’।
সাইনোপ্যাকের প্রতিনিধি বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানান, প্রতিষ্ঠানের হয়ে কাজ করতেন এমন তৃতীয় পক্ষের একজন গাড়িচালক নিহত হন। এ ছাড়া কোম্পানির একজন কর্মী সামান্য আহত হয়েছেন।
প্রতিষ্ঠানটি উইবোতে তাদের অফিশিয়াল পেজে জানিয়েছে, তারা সরকারকে তদন্তে সহযোগিতা করবে। কারখানা বন্ধ করা হলেও বাজারে এর তেমন প্রভাব পড়বে না।
স্থানীয় এক বাসিন্দার সরবরাহ করা অ্যারিয়াল ড্রোন ফুটেজের বরাত দিয়ে এএফপি জানায়, বিস্তীর্ণ শিল্পাঞ্চলের ওপর ধোঁয়ার কুণ্ডলী ও তিনটি পৃথক স্থানে আগুন জ্বলতে দেখা যায়।
করোনার নতুন ধরন অমিক্রন ছড়িয়ে পড়লে চীনের বাণিজ্যিক ইঞ্জিন হিসেবে পরিচিত ঘনবসতিপূর্ণ শহর সাংহাই প্রায় দুই মাসের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। এরপর দারুণভাবে আবার ব্যবসা শুরু করতেই এই ধাক্কা খেল।
স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোর খবরে বলা হয়, ভোরে সেই বিস্ফোরণের শব্দ ছয় কিলোমিটারের বেশি দূর থেকেও শোনা গেছে।
শোধনাগারটি দক্ষিণ সাংহাইয়ের সমুদ্রের খুব কাছে, সেখানে একটি জলাভূমি পার্কও রয়েছে।
বিবিসির খবরে বলা হয়, সাইনোপ্যাক জানিয়েছে, তারা এ অগ্নিকাণ্ডের পরিবেশগত প্রভাব পর্যবেক্ষণ করে দেখছে এবং ঘটনাস্থলের আশপাশের জলাভূমির পরিবেশগত কোনো ক্ষতি রেকর্ড হয়নি।
সাংহাই ফায়ার দপ্তর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম উইবোতে জানিয়েছে, ঘটনার পরপরই তারা সেখানে ৫০০–এর বেশি কর্মী পাঠিয়েছেন। জরুরি ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ও সেখানে একটি বিশেষজ্ঞ দল পাঠিয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here