মুন্সীগঞ্জে সিরাজদিখানে স্ত্রীকে মারধরের ভিডিও ভাইরাল, স্বামী আটক

0
456

মো: লিটন মাহমুদ, মুন্সীগঞ্জ প্রতি‌নি‌ধি : মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার মালখানগর ইউনিয়নের কাজিরবাগ গ্রামে এক গৃহবধূকে মারধরের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। এই ঘটনায় পুলিশ গৃহবধূর স্বামী মুরাদ শেখকে (৪০) আটক করেছে।
আজ রোববার (১ আগস্ট) সকালে এ ঘটনা ঘটে। পরে বিকেল ৩টার দিকে তাকে আটক করা হয়।
এক প্রতিবেশী হালিমাকে মারধর করার দৃশ্য মোবাইলে ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দিলে তা ভাইরাল হয়। পরে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও লোকজন গিয়ে হালিমাকে উদ্ধার করে ৯৯৯ এ ফোন দেন।
স্থানীয়রা জানান, ওই গ্রামের হেলাল শেখের ছেলে মুরাদ শেখ দীর্ঘদিন ধরে তার স্ত্রী হালিমা বেগমকে মারধর করে আসছেন। আজ রোববার সকালে ফের হালিমাকে কিল-ঘুষি মেরে নির্মমভাবে মারধর করেন। এ সময় প্রতিবেশী নারীরা বাধা দিতে এলে মুরাদ তাদের চাপাতি নিয়ে তেড়ে যান। এর আগে বেশ কয়েকবার হালিমাকে পানিতে চুবিয়ে মারার চেষ্টা করেছিলেন মুরাদ।
গত শনিবার এসব ব্যাপারে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য সালিস করেছেন। কিন্তু মুরাদ তার স্ত্রীকে শারীরিক নির্যাতন করা বন্ধ করেন নি।
এ বিষয়ে মালখানগর ইউপি সদস্য মো. আবু সাঈদ বলেন, আমি ঘটনা শুনতে পেরে ঘটনাস্থলে যাই। দেখি মুরাদ হালিমার পেটে, পিঠে, মুখে কিল-ঘুষি মারছে। আমি হালিমাক উদ্ধার করি এবং মুরাদকে আটকে রেখে পুলিশকে খবর দিই।
বাংলাদেশ মানবাধিকার উন্নয়ন কমিশনের মুন্সিগঞ্জ জেলা শাখার চেয়ারম্যান এ এন হুমায়ুন কবির ঢাকা পোস্টকে বলেন, গৃহবধূকে যেভাবে তার স্বামী নির্যাতন করেছে, এটা মধ্যযুগীয় বর্বরতাকেও হার মানায়। আমরা হালিমার চিকিৎসার কথা বলেছি। তার ভাই বলেছেন তারা চিকিৎসা করবেন। যদি তার উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন হয়, আমি সহায়তা করব।
সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বোরহান উদ্দিন আমা‌দের কে বলেন, গৃহবধূকে মারধরের বিষয়টি জানতে পেরে আমি ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে মুরাদকে আটক করে থানায় নিয়ে আসি।
তার স্ত্রী হালিমা বাদী হয়ে অভিযোগ করার প্রস্তুতি চলছে। মুরাদ বিয়ের পর থেকেই তার স্ত্রীকে মারধর করতেন বলে জানা গেছে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here