পূর্বধলা সদর বাজারের রাস্তাগুলির বেহাল দশা ; জনদূর্ভোগ চরমে

0
149

মো: জায়েজুল ইসলাম: নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলা সদরের রাস্তাগুলির বেহালদশা বিরাজ করছে। রাস্তার পাশে ড্রেন না থাকায় একটু বৃষ্টি হলেই পানি কাদা জমে একাকার হয়ে থাকে। এতে প্রতিনিয়ত ভোগান্তির শিকার হচ্ছে এখানকার লোকজনদের। ঘটছে ছোটখাটো দূর্ঘটনাও। দীর্ঘদিন ধরে এ অবস্থা বিরাজ করলেও কোন কার্যকরী ব্যবস্থা নিচ্ছেনা কর্তৃপক্ষ। এতে সাধারন মানুষের মনে ক্ষোভের সৃষ্টি হচ্ছে।
উপজেলা সদর বাজারের প্রধান সড়কসহ ছোটবড় প্রায় ১৫টির মতো রাস্তা রয়েছে। এসবের মধ্যে মূল সড়ক, স্টেশন রোড, বালিকা বিদ্যালয় রোড, থানা রোড, রৌশনারা রোড, মঙ্গলবাড়ীয়া রোড, মেছুয়া বাজার রোড, পাটবাজার রোড, খাদ্যগোদাম রোড উল্লেখযোগ্য ।

এসব সড়কের প্রত্যেকটি দীর্ঘদিন যাবত সংস্কারের অভাবে ভগ্নদশা বিরাজ করছে। তার উপর রাস্তার পাশে পানি নিষ্কাশনের জন্য ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় রাস্তার উপর দিয়েই পানি গড়িয়ে চলাচল করতে দেখা যায়। এতে রাস্তা নরম হয়ে ধেবে গিয়ে স্থানে স্থানে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।
সরেজমিনে দেখা গেছে পূর্বধলা সদর বাজারের মূল সড়কের ইলাশপুর চৌরাস্তা থেকে বাজার হয়ে কলেজ মোড় পর্যন্ত অংশে পুরো রাস্তাজুরেই উপরের পিচের অংশ উঠে গিয়ে গর্ত সৃষ্টি হয়েছে। দুই পাশে পানি চলাচলের ব্যবস্থা না থাকায় রাস্তার উপর পানি জমে থাকায় পুরো রাস্তা জুড়েই বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এই রাস্তার জামতলা ও মধ্যবাজারের কিছু অংশে ইট বিছিয়ে দেওয়ায় পথচারীদের কিছুটা সুবিধা হলেও দুই পাশের ব্যবসায়ীরা পড়ে বিপাকে। রাস্তা উচু হয়ে যাওয়ায় এবং রাস্তার পাশে ড্রেন না থাকায় রাস্তার পানি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে পড়ে। উপায় না পেয়ে দোকানের সামনে বাধ দিয়ে পানি ঢুকা থেকে রক্ষা করছে ব্যবসায়ীরা। স্টেশন রোডের পুরো রাস্তা জুড়েই পানিকাঁদা জমে একাকার হয়ে থাকে। এই রাস্তায় হাসপাতাল সংলগ্ন, মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ও কৃষি ব্যাংকের সামনের অংশে সবচেয়ে বেশি ভগ্নদশা সৃষ্টি হয়েছে। একই অবস্থা বিরাজ করছে পূর্বধলা বালিকা বিদ্যালয় রোডটিতেও। এই রোডে তিনটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অনেক কষ্টে এই রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করে। উপজেলার রৌশনারা রোডটি পূর্বধলা পৌরসভা থাকাকালীন কিছু অংশা পাকা করণ করার পরে আর সংস্কার না করায় বর্তমানে বেহাল দশা বিরাজ করছে। রাস্তার পাশে ড্রেন না থাকায় বৃষ্টির পানিসহ বাসাবাড়ীর পয়নিস্কাশনের পানি সারাদিন রাস্তার উপর দিয়ে গড়িয়ে যেতে দেখা যায়। এতে দূর্গন্ধসৃষ্টি হয়ে পরিবেশ দূষিত হচ্ছে। মঙ্গলবাড়ীয়া হতে কাপাশিয়া রোড পর্যন্ত রাস্তাটিও পৌরসভা থাকাকালীন নির্মিত হলেও পরে আর সংস্কার না করায় স্থানে স্থানে ভাঙ্গন সৃষ্টি হয়ে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এসব ভগ্ন রাস্তা দ্রুত সংস্কার ও রাস্তার পাশে পানি চলাচলের জন্য ড্রেন নির্মানের দাবী জানিয়ে আসছে এলাকাবাসী।
পূর্বধলা পরিবেশ আন্দোলনের সাধারন সম্পাদক রাশেদ খান সুজন বলেন, রাস্তার পাশের পানি চলাচলের জন্য ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় সৃষ্ট জলাবদ্ধতায় এ দূর্ভোগের সৃষ্টি হচ্ছে। তাছাড়া প্রয়োজনীয় জায়গা না রেখে পূর্বধলা উপজেলা সদরে অপরিকল্পিতভাবে বাসা-বাড়ী ও দোকানঘর নির্মাণ করায় পানি চলাচলের রাস্তা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। তাই এ বিষয়ে এখনই কার্যকরী ব্যবস্থা না নেওয়া হলে ভবিষ্যতে আরও দূর্ভোগে পড়তে হবে।
উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল আলীম লিটন জানান, উপজেলা সদরের রাস্তার পাশে পানি নিস্কাশনের জন্য ড্রেন নির্মাণ ও প্রয়োজনীয় রাস্তার সংস্কারের জন্য প্রকল্প প্রস্তুত করে উপর মহলকে জানানো হবে।
উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম সুজন জানান, চলচলে উপজেলাবাসীর দুর্ভোগ লাঘবে উপজেলা পরিষদের উদ্যোগে রাস্তার কিছু গর্ত ইট সুরকি বালু দিয়ে ইতিমধ্যে ভরাট করা হয়েছে। সামনে শুকনা মওসুমে প্রয়োজনীয় সংস্কারের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here