কোলন ক্যানসার কি পারিবারিক?

0
105

আরবান ডেস্ক : আমি ৫২ বছর বয়সী এক নারী। আমার মতো বয়সীদের নিয়মিত ম্যামোগ্রাফি করানো কি জরুরি? যদি নিয়মিত এ পরীক্ষা করাই, তবে ক্যানসার থেকে কি সুরক্ষিত থাকা যাবে?—ফাহমিদা খানম, ঢাকা। আপনার পরিবারের কারও স্তন ক্যানসার হওয়ার ইতিহাস যদি থাকে, তবে বছরে একবার ম্যামোগ্রাফি করাতে পারেন। পরিবারে কোনো সদস্যের স্তন ক্যানসার, অগ্ন্যাশয় ক্যানসার, কোলন ক্যানসার যদি না থাকে, সে ক্ষেত্রে প্রতি দুই বছরে একবার ম্যামোগ্রাফি করাতে পারেন। নিয়মিত ম্যামোগ্রাফি করালেই ক্যানসার থেকে সুরক্ষিত থাকা যাবে এটা বলা যায় না। সে ক্ষেত্রে সেলফ ব্রেস্ট অ্যাসেসমেন্ট এবং বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দিয়ে নিয়মিত পরীক্ষা করানো অত্যন্ত জরুরি। এ ছাড়া চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী আপনি আলট্রাসনোগ্রাম/ম্যামোগ্রাফি করাতে পারেন। পরামর্শ দিয়েছেন—অধ্যাপক মো. এহতেশামুল হক, সিনিয়র কনসালট্যান্ট, ক্লিনিক্যাল অনকোলজি ও রেডিওথেরাপি, ল্যাবএইড ক্যানসার হসপিটাল অ্যান্ড সুপার স্পেশালিটি সেন্টার, ঢাকা। আমার বয়স ২৫ বছর। বিবাহিত। ঘাড়ে কেমন যেন একটা ফোড়ার মতো উঠেছে। কয়েক মাস আগে চিকিৎসক দেখিয়েছি। তিনি সাত দিনের অ্যান্টিবায়োটিক দিয়েছিলেন। কিন্তু উপকার পাইনি। অনেকে ক্যানসারের ভয় দেখাচ্ছেন। এখন আমার কী করা উচিত?
সাধারণত যেকোনো গোটা, যেটিতে ব্যথা থাকে বা পুঁজ জমে থাকে, সেগুলো সংক্রমণের কারণে হয়। যেমন ফোড়া, কার্বাংকল ইত্যাদি। তবে ব্যথাহীন গোটা বা চাকা দীর্ঘদিন থাকলে তা থেকে টিস্যু নিয়ে হিস্টোপ্যাথলজি বা বায়োপসি করা উচিত। তাহলেই নিশ্চিতভাবে বোঝা যাবে এটি কী বা ক্যানসার কি না!
পরামর্শ দিয়েছেন—ডা. মো. সাইফুল হাসান, ক্যানসার বিশেষজ্ঞ, রেডিয়েশন অনকোলজি বিভাগ, জাতীয় ক্যানসার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল, মহাখালী, ঢাকা। আমার বাবা কোলন ক্যানসারে মারা গেছেন। শুনেছি এটি পারিবারিক। আমার বয়স এখন ৪২ বছর, আমার কীভাবে সতর্ক হওয়া উচিত। কোলন ক্যানসার, স্তন ক্যানসার ইত্যাদির পারিবারিক ইতিহাস থাকলে ঝুঁকি একটু বেশি। ৪০ বছর বয়সের পর থেকে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী নিয়মিত স্ক্রিনিংয়ে অংশ নেওয়া ভালো। সাধারণত কোলনোস্কপি ও অন্যান্য কিছু পরীক্ষার মাধ্যমে এই স্ক্রিনিং করা হয়। এর বাইরে ঝুঁকি কমাতে রেড মিট কম খাবেন, বেশি করে তাজা শাকসবজি ও ফলমূল খাবেন, ধূমপান বর্জন করবেন। ওজন কমান ও নিয়মিত হাঁটুন। মলত্যাগের অভ্যাসে হঠাৎ পরিবর্তন, ওজন হ্রাস, রক্তশূন্যতা, মলের সঙ্গে রক্তপাত ইত্যাদি উপসর্গ হলে দেরি না করে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হবেন। রামর্শ দিয়েছেন—ডা. মো. সাইফুল হাসান, ক্যানসার বিশেষজ্ঞ, রেডিয়েশন অনকোলজি বিভাগ, জাতীয় ক্যানসার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল, মহাখালী, ঢাকা।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here