কেন্দুয়া পৌরসভা নির্বাচন প্রচারনায় এগিয়ে পাঁচ নং ওয়ার্ডে সাইদুল ছয় নং ওয়ার্ডে আজাদ তালুকদার

0
47

সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা, কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি : নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই বাড়ছে প্রার্থী ও সমর্থকদের দৌড় ঝাপ। সব প্রার্থীরাই নির্বাচনী বৈতরনী পার হতে যার যার কৌশল অবলম্বন করে মাঠ দখলের চেষ্ঠা করছেন। তবে ইতিমধ্যে আওয়ামী পরিবারের লোক হিসেবে ৫ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী সাবেক কমিশনার মোঃ সাইদুল ইসলাম ডালিম প্রতীক নিয়ে প্রচার প্রচারনায় অনেক এগিয়ে রয়েছেন। তিনি পৌরসভা প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে প্রশাসনিক কমিটির সদস্যও ছিলেন। নিজেকে আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী বলে দাবী করছেন তিনি। এই ওয়ার্ডের কেন্দ্রে ভোটাধিকার প্রয়োগ করার কথা রয়েছে নেত্রকোনা-৩ আসনের সংসদ সদস্য অসীম কুমার উকিল, বাংলাদেশ যুব মহিলালীগের সাধারন সম্পাদক সাবেক এম.পি অধ্যাপক অপু উকিল, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলী আমজাদ খান বাহার ও পৌর আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি শাহজাহান তালুকদার সহ আরো অনেকেই। প্রচার প্রাচারনা ও ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ডালিম প্রতীক নিয়ে ভোট চাইচেন মোঃ সাইদুর রহমান। তিনি বলেন, নির্বাচিত হলে এই ওয়ার্ড কে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষনা অনুযায়ী নির্বাচিত মেয়রকে সঙ্গে নিয়ে ঢেলে সাজাবেন। এজন্য চান তিনি সকলের সহযোগিতা।
অপর দিকে ৬ নং ওয়ার্ড কেন্দুয়া বাজার এলাকায় কাউন্সিলর প্রার্থী হয়েছেন ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আজাদ তালুকদার। তিনি প্রথম বারের মত কাউন্সিলর প্রার্থী হয়েছেন। নতুন মুখ হিসেবে ভোটারদের কাছে নিজেকে তুলে ধরছেন সমর্থন আদায়ের জন্য। প্রচার প্রচারনার দিক থেকে উট পাখি প্রতীক নিয়ে আজাদ তালুকদারও পিছিয়ে নেই। তিনি বলেন, নির্বাচিত হতে পারলে শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য নিজেকে নিয়োজিত করবেন। আজাদ তালুকদার বলেন, এই বাজার এলাকায় শ্রমজীবী মানুষের জন্য নেই কোন গোসলখানা, নেই গণসৌচাগার ফলে তারা অত্যান্ত অমানবিক ভাবে দিন যাপন করছেন। আজাদ তালুকদার বলেন, আমি নির্বাচিত হলে গোসলখানা ও গণসৌচাগার নির্মান ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতাই হবে আমার প্রথম কাজ। এজন্য তিনি সকলের দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here