Home রাজনীতি কেন্দুয়ায় ১৭ বছরেও কান্দিউড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন হয়নি: তৃণমূল নেতাকর্মীদের উত্তেজনা

কেন্দুয়ায় ১৭ বছরেও কান্দিউড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন হয়নি: তৃণমূল নেতাকর্মীদের উত্তেজনা

সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা, কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি: সতের বছরেও কান্দিউড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন হয়নি। নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া উপজেলা সদর ঘেঁষে এই ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের অনেক ত্যাগী নেতাকর্মী কেন্দ্রীয় জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতাদের সঙ্গে এক সঙ্গে উঠা বসা করছেন। কিন্তু সম্মেলনের তারিখ নির্ধারনে কোন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ঘোষনা না করায় শত শত তৃণমূলের আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা পড়েছেন চরম হতাশায়। এতে দলীয় কর্মকান্ড চাঙ্গা না হয়ে একেবারেই নীরব হয়ে যেতে পারে। দলের তৃণমূল নেতাকর্মীরা রাজনৈতিক কর্মকান্ডকে চাঙ্গা করতে জরুরী সম্মেলন দাবী করছেন। দলীয় সূত্র জানায়, কান্দিউড়া ইউনিয়নের ৭ নং বিষ্ণুপুর ও ৮ নং জালালপুর দুটি ওয়ার্ডে আওয়ামীলীগের চার কমিটি দিয়ে চলছে ৫ বছর। ৭ নং বিষ্ণুপুর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের দুটি কমিটির মধ্যে একটির সভাপতি ছিলেন আওয়ামীলীগ নেতা মতি মিয়া ও সাধারন সম্পাদক আওয়ামীলীগ নেতা সবুজ মিয়া, অপরটির সভাপতি ছিলেন আওয়ামীলীগ নেতা মাজু মিয়া ও সাধারন সম্পাদক আওয়ামীলীগ নেতা জান্টু মিয়া। এছাড়া ৮ নং ওয়ার্ডের দুটি কমিটির মধ্যে একটির সভাপতি ছিলেন আওয়ামীলীগ নেতা আজিজুল ইসলাম ভূঞা, সাধারন সম্পাদক আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল মান্নান। অপর কমিটির সভাপতি আওয়ামীলীগ নেতা মজিবুর রহমান আসলাম এবং সাধারন সম্পাদক আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ সেলিম। আজিজুল ইসলাম জানান, দীর্ঘ ৫ বছর দায়িত্ব পালন কালে সরকার বা কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে আমরা যা কিছু বরাদ্দ পেয়েছি তা সমভাবে বন্টন করে দুই কমিটির নেতৃত্বে বিতরন করেছি। সবুজ মিয়া জানান, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের কমিটি গঠন কল্পে গত (১ সেপ্টেম্বর) জালালপুর ও বিষ্ণুপুর ওয়ার্ডের চার কমিটির আটজন সভাপতি সম্পাদক ঐক্যমত পোষন করে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি সম্পাদকের নিকট একটি লিখিত দেই। যাতে তারা দ্রুত ওই ওয়ার্ড দুটির সম্মেলন করেন। এরই প্রেক্ষিতে গত ৪ সেপ্টেম্বর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মুসলেম উদ্দিন ও সাধারন সম্পাদক আব্দুল আউয়াল ভূঞা সকল নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে দুটি ওয়ার্ডে ৪ জনকে সভাপতি সম্পাদক মনোনীত করেন। সবুজ মিয়া জানান, ঐক্যমতের ভিত্তিতে আমাকে ৭ নং ওয়ার্ডের সভাপতি এবং জান্টু মিয়াকে সাধারন সম্পাদক নিযুক্ত করে অনুমোদন দেন তারা। অপর দিকে ৮ নং ওয়ার্ডের সভাপতি হিসেবে মজিবুর রহমান আসলাম এবং সাধারন সম্পাদক আব্দুল মান্নানকে নিযুক্ত করে অনুমোদন দেন। তিনি অভিযোগ করে বলেন, একটি বিশেষ মহলের যোগ সাজসে আসন্ন সম্মেলনকে বানচাল করতে সাবেক সভাপতি মতি মিয়া সভাপতি হতে না পারায় ব্যক্তি স্বার্থে আমার বিরুদ্ধে নানা অপপ্রচার শুরু করছেন। তিনি তার সমর্থীত লোকদের নিয়ে বলছেন, আমি নাকি বিএনপি সমর্থীত। সবুজ মিয়া এই অপপ্রচারের বিরুদ্ধে ৯ অক্টোবর কেন্দুয়া প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বলেন, আমি বিএনপির সমর্থক এর কোন প্রমাণ কেউ দিতে পারলে আমি সারা জীবনের জন্য রাজনীতি ছেড়ে দেব। অপর দিকে (১২ অক্টোবর) মতি মিয়ার নেতৃত্বে বিষ্ণুপুর ক্লাবঘর প্রাঙ্গনে আওয়ামীলীগ সভাপতি সবুজ মিয়াকে বি.এন.পির সমর্থক দাবী করে তাকে প্রত্যাহারের দাবীতে মানব বন্ধন করা হয়েছে। সবুজ মিয়া জানান, আমি ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের নব নিযুক্ত সাধারন সম্পাদক জান্টু মিয়াকে নিয়ে ৫১ সদস্য পূর্নাঙ্গ কমিটি করে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও উপজেলা আওয়ামীলীগের নিকট জমা দিয়েছি। বিষ্ণুপুর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতিকে কেন্দ্র করে ওই ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের মাঝে কয়েকদিন ধরে বিরাজ করছে উত্তেজনা। চলছে পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি। যে কোন সময় মারাত্বক দাঙ্গা হাঙ্গামা দেখা দিতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তৃণমূল আওয়ামীলীগ নেতা ও কান্দিউড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বলেন, এসব দ্বন্ধ নিরসনে কঠিন হস্পক্ষেপ করে জরুরী ভাবে দলের কার্যক্রমকে চাঙ্গা করতে কান্দিউড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্মেলনের তারিখ ঘোষনা এখন সময়ের দাবী। যত দ্রুত সম্মেলন হবে ততই দলের নেতাকর্মীদের মঙ্গল বলে তার দাবী। উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি মোঃ শাহজাহান ভূঞা বলেন, শোনাযাচ্ছে কাউন্সিলর তালিকা জমা হলেই সম্মেলন হবে। আমিও এই ইউনিয়নের দ্রুত সম্মেলন হোক এটা দাবী করি। এদিকে সাধারন সম্পাদক প্রার্থী মাহাবুব আলম বাবুল বলেন, ১৭ বছর ধরে এই ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের সম্মেলন হয় না। যে কারনে দলীয় কর্মকান্ড একেবারেই ভেঙ্গে পড়েছে। তিনিও দ্রুত সম্মেলন অনুষ্ঠানের দাবী করেন। কেন্দুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ নূরুল ইসলামের কাছে কান্দিউড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্মেলনের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষ্ণুপুর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতিকে ঘিরে পাল্টাপাল্টি কিছু কথাবার্তা উঠে আসছে, এসব বিষয় দ্রুত নিরসনের জন্য ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদককে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এর নিরসন হলে জেলা কমিটি যে দিনই সম্মেলনের তারিখ ঘোষনা করবেন, সেদিনই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা
তারিখ: ১৩/১০/২০১৯ ইং
০১৭১৮৭০৪৪২৬।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- বিজ্ঞাপন-

জনপ্রিয় সংবাদ

পূর্বধলায় অদম্য প্রতিভার এক দৃষ্টিপ্রতিবন্ধি

নিজস্ব প্রতিবেদক : নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার বিশকাকুনি ইউনিয়নের ধলাযাত্রাবাড়ি গ্রামের মো: ইদ্রিস আলীর ছেলে মো: রুবেল মিয়া( ৪০)। জন্মগত ভাবে সে অন্ধ...

চুনারুঘাটকে মাদকমুক্ত করতে সকলের সহযোগীতা চেয়েছেন ওসি শেখ নাজমুল হক

আবেদ আলী, চুনারুঘাট (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি : চুনারুঘাট থানাকে মাদকমুক্ত করতে সকল মহলের সহযোগীতা চেয়েছেন থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ নাজমুল হক। তিনি...

কোম্পানীগঞ্জে এসএসসি পরীক্ষায় পাশের হার ৬০.৪৬ শতাংশ ৬টি জিপিএ-৫

রুহুল আমিন বাবুল, কোম্পানীগঞ্জ (সিলেট) প্রতিনিধি : এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ২০২০ এর ফল প্রকাশ হয়েছে। আজ রোববার (৩১ মে) প্রধানমন্ত্রী ভিডিও...

১লা জুন থেকে চট্টগ্রাম-রাঙামাটি রোডে ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে পাহাড়িকা সার্ভিস গাড়ি চলাচল শুরু হবে

মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন সিকদার, রাঙামাটি সদর প্রতিনিধি : আগামীকাল থেকে চট্টগ্রাম-রাঙামাটি রোডে ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে পাহাড়িকা গাড়ি চলাচল শুরু হবে। ভাড়া...

মতামত

Print Friendly, PDF & Email