Home বাংলাদেশ কাল থেকে সপ্তাহের পাঁচ দিনই বসছে ভার্চুয়াল আপিল বিভাগ

কাল থেকে সপ্তাহের পাঁচ দিনই বসছে ভার্চুয়াল আপিল বিভাগ

আরবান ডেস্ক : আগামীকাল রবিবার (১৯ জুলাই) থেকে সপ্তাহের পাঁচ দিনই বসবে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের ভার্চুয়াল পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ।
পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত প্রতি সপ্তাহের রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার বসবে দেশের সর্বোচ্চ আদালত।
এ বিষয়ে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নির্দেশে আজ শনিবার (১৮ জুলাই) আবারো বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন।
এরআগে গত ১৪ জুলাই একই বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছিল। ওই বিজ্ঞপ্তিতেও ১৯ জুলাই থেকে সাপ্তাহিক ছুটির দুই দিন ছাড়া সপ্তাহে পাঁচ দিন আপিল বিভাগ বসার কথা বলা হয়।
এরও আগে গত ১১ রাতে জুলাই এক বিজ্ঞপ্তিতে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন জানায়, সপ্তাহে দুইদিন (সোম ও বৃহস্পতিবার) বসবে আপিল বিভাগ। এই নির্দেশনার পরদিন ১২ জুলাই রবিবার ও ১৬ জুলাই বৃহস্পতিবার বসেছিল আপিল বিভাগের ভার্চুয়াল পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ।
আপিল বিভাগের রেজিস্ট্রার মো. বদরুল আলম ভূঁঞার স্বাক্ষরে আজ শনিবার জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘প্রধান বিচারপতি দেশব্যাপী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে শারীরিক উপস্থিতি ব্যতিরেকে আদালত কর্তৃক তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার অধ্যাদেশ ২০২০ এবং অত্র কোর্ট কর্তৃক প্রণীত প্র্যাকটিস ডাইরেকশন অনুসরণ করতে তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার করে শুধু ভার্চুয়াল উপস্থিতির মাধ্যমে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে ভার্চুয়াল কোর্টের মাধ্যমে স্বাভাবিক বিচারকার্য পরিচালিত হবে মর্মে অনুমোদন প্রদান করেছেন।’
বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, ‘আপিল বিভাগের ভার্চুয়াল কোর্টে আগামী ১৯ জুলাই থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সপ্তাহের রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে সোয়া একটা পর্যন্ত শুনানি গ্রহণ করা হবে। এই দিনগুলোতে সুপ্রিম কোর্টের দৈনন্দিন স্বাভাবিক কার্যক্রম পরিচালিত হবে।’
সর্বশেষ গত ১২ মার্চ সশরীরে বসেন প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ। পরদিন ১৩ মার্চ থেকে সুপ্রিম কোর্টে শুরু হয় অবকাশকালীন ছুটি। এই ছুটি শেষ হওয়ার আগেই দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঘটে। এ অবস্থায় গত ২৬ মার্চ থেকে সারা দেশে নিয়মিত আদালত বন্ধ হয়ে যায়। এ প্রেক্ষাপটে ভার্চুয়াল আদালত চালু করতে গত ৯ মে আদালতে তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার অধ্যাদেশ, ২০২০ নামে গেজেট প্রকাশ করে।
এই অধ্যাদেশের ক্ষমতাবলে ভার্চুয়াল উপস্থিতি নিশ্চিত করার মাধ্যমে আদালতকে মামলার বিচার, বিচারিক অনুসন্ধান, দরখাস্ত বা আপিল শুনানি, সাক্ষ্যগ্রহণ, যুক্তিতর্ক গ্রহণ, আদেশ বা রায় দেওয়ার ক্ষমতা দেওয়া হয়। পরদিন ১০ মে সুপ্রিম কোর্টসহ সারা দেশে ভার্চুয়াল আদালত পরিচালনার জন্য ‘প্র্যাকটিস নির্দেশনা’ এবং আইনজীবীদের জন্য ‘ভার্চুয়াল কোর্টরুম ম্যানুয়াল’ প্রকাশ করা হয়। এরপর ১১ মে থেকে ভার্চুয়াল আদালত কার্যক্রম শুরু হয়। প্রথমে শুধুমাত্র সীমিত আকারে নির্দিষ্ট কিছু আদালতে জামিন আবেদনের শুনানি শুরু হয়। পরবর্তীতে ৩০ মে-এর পর আদালতের সংখ্যা ও এখতিয়ার বাড়ানো হয়েছে।
এরপর থেকে আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালতসহ সারা দেশে আদালতগুলোতে নির্ধারিত নিয়ম অনুসরণ করে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শুনানি করা হচ্ছে। এর ধারাবাহিকতায় আপিল বিভাগের ভার্চুয়াল পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ বসার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

Print Friendly, PDF & Email
syed arifuzzamanhttp://www.arban.org.bd/
Md. Syed Arifuzzaman working as social worker and founder of Arban-Activity for the reformation of basic needs. My goal to help underprivileged people to aware about good health, quality education and importance of technical education.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- বিজ্ঞাপন-

জনপ্রিয় সংবাদ

পূর্বধলায় পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

মো: জায়েজুল ইসলাম : নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলায় আজ বুধবার বিকেলে পানিতে ডুবে মাজহারুল ইসলাম (আড়াই বছর) নামের এক শিশু মারা গেছে। সে...

প্রজাতন্ত্রের একজন জনবান্ধব কর্মকর্তার হঠাৎ প্রত্যাহারে সবাই হতবাক

মঈনউল ইসলাম একজন জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট। এ পদে নেত্রকোনা জেলায় তাঁর দায়িত্ব পালন প্রায় দুই বছর। দায়িত্বকালীন সংশ্লিষ্টজনদের কাছে তিনি...

পূর্বধলায় সাবেক চেয়ারম্যান ও মুক্তিযোদ্ধা তারা মিয়ার উপর হামলা, গ্রেপ্তার-১

মো: জায়েজুল ইসলাম : নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও মুক্তিযোদ্ধা তারা মিয়া (৭০) দূবৃত্তদের হামলায় আহত হয়েছেন। তিনি বর্তমানে...

ভোলার তজুমদ্দিনে শাশুড়ির সহযোগিতায় গৃহবধু ধর্ষনের অভিযোগ

মো: আইয়্যুব আলী, তজুমদ্দিন  প্রতিনিধি : ভোলার তজুমদ্দিনে শাশুড়ীর সহযোগীতায় রাতের আধাঁরে এক লম্পট কর্তৃক গৃহবধুকে জোড়পূর্বক ধর্ষনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ৩১...

মতামত

Print Friendly, PDF & Email