এই অর্থনৈতিক সমস্যার মধ্যেও বেড়েছে কোটিপতির সংখ্যা

0
56

আরবান ডেস্ক : বৈশ্বিক ও অভ্যন্তরীণ অর্থনৈতিক মন্দার মধ্যেও তিন মাসে ব্যাংক খাতে কোটিপতি হিসাবধারীদের সংখ্যা বেড়েছে। এর মধ্যে কোটি টাকার ওপরে আমানতের হিসাব বেড়েছে ১৬০৩টি।
একই সঙ্গে ঋণ হিসাব বেড়েছে ২৪৮২টি। দুই হিসাবেই কোটি টাকার ওপরের গ্রাহকদের জমা টাকাও বেড়েছে। মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রকাশিত এক প্রতিবেদন বিশ্লেষণ করে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।
প্রতিবেদনে দেখা যায়, গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ব্যাংকগুলোয় কোটি টাকার ওপরে জমা আছে এমন হিসাব ছিল ১ লাখ ১ হাজার ৯৭৬টি। গত ৩১ মার্চ পর্যন্ত এ হিসাবের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৩ হাজার ৫৭৯টি। আলোচ্য তিন মাসে ব্যাংকে কোটিপতি আমানতের হিসাব বেড়েছে ১ হাজার ৬০৩টি। ওইসব হিসাবে জমা টাকাও বেড়েছে। এসব হিসাবের বেশির ভাগই বেসরকারি খাতের ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের।
সূত্র জানায়, ব্যাংকিং খাতে যখন আমানতের প্রবৃদ্ধির হার উল্লেখযোগ্য হারে কমছে, তখন কোটিপতি আমানতকারীদের সংখ্যা বাড়ছে। এর মানে-আমানতের টাকা একটি শ্রেণির হাতে কেন্দ্রীভূত হয়ে পড়ছে।
যে কারণে গুটিকয়েক আমানতকারীই ব্যাংকে আমানত রাখছেন। এছাড়া আমানতের বিপরীতে সুদ আরোপ ও নতুন করে টাকা জমার কারণে কোটিপতি আমানতকারী বেড়েছে।
গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ব্যাংকগুলোয় কোটি টাকার ওপরে জমা আছে এমন ঋণ হিসাব ছিল ১ লাখ ১৯ হাজার ৮৬৬টি। ৩১ মার্চ পর্যন্ত তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ১৭ হাজার ৩৮৪টি। আলোচ্য তিন মাসে কোটিপতির ওপরে ঋণ হিসাব বেড়েছে ২৪৮২টি। সূত্র জানায়, সাম্প্রতিক সময়ে ঋণপ্রবাহ বেড়েছে। এছাড়া করোনার কারণে অনেকেই আগের ঋণ শোধ করেননি। ফলে আগের ঋণের সঙ্গে সুদ যোগ করার কারণে কোটিপতি ঋণগ্রহীতা বেড়েছে।
প্রতিবেদন থেকে পাওয়া তথ্যে দেখা যায়, ৩১ মার্চ পর্যন্ত ১ কোটির বেশি থেকে ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ৮১ হাজার ৩৪৪টি হিসাবে জমা ছিল ১ লাখ ৬৮ কোটি টাকা। ৫ কোটির বেশি থেকে ১০ কোটি পর্যন্ত ১১ হাজার ৪৮৭টি হিসাবে জমা ছিল ৮১ হাজার ৬৪ কোটি টাকা। ১০ কোটির বেশি থেকে ১৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ৩ হাজার ৮৬৫টি হিসাবে জমা ছিল ৪৬ হাজার ৫০০ কোটি টাকা। ১৫ কোটির বেশি থেকে ২০ কোটি টাকা পর্যন্ত ১ হাজার ৭৭১টি হিসাবে জমা ছিল ৩১ হাজার ৫৩০ কোটি টাকা।
২০ কোটির বেশি থেকে ২৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ১ হাজার ১৫৫টি হিসাবে জমা ছিল ২৬ হাজার কোটি টাকা। ২৫ কোটির বেশি থেকে ৩০ কোটি টাকা পর্যন্ত ৮৮৬টি হিসাবে জমা ছিল ২৪ হাজার ৪৪০ কোটি টাকা। ৩০ কোটির বেশি থেকে ৩৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ৪৫৮টি হিসাবে জমা ছিল ১৪ হাজার ৭৭ কোটি টাকা। ৩৫ কোটির বেশি থেকে ৪০ কোটি টাকা পর্যন্ত ২৯০টি হিসাবে জমা ছিল ১০ হাজার ৯৪০ কোটি টাকা।
৪০ কোটির বেশি থেকে ৫০ কোটি টাকা পর্যন্ত ৬৪৪টি হিমাবে জমা ছিল ২৯ হাজার ৮৬০ কোটি টাকা। ৫০ কোটি টাকার বেশি ১ হাজার ৬৯৭টি হিসাবে জমা ছিল ২ লাখ ৩০ হাজার কোটি টাকা।
এদিকে গত বছরের ডিসেম্বর পর্যন্ত ১ কোটির বেশি থেকে ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ৭৯ হাজার ৮৮৩টি হিসাবে জমা ১ লাখ ৬৬ হাজার কোটি টাকা। ৫ কোটির বেশি থেকে ১০ কোটি টাকা পর্যন্ত ১ হাজার ১২৫টি হিসাবে জমা ৮২ হাজার ৮৮৯ কোটি টাকা। ১০ কোটির বেশি থেকে ১৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ৩ হাজার ৮১২টি হিসাবে জমা ৪৬ হাজার ১৯৯ কোটি টাকা। ১৫ কোটির বেশি থেকে ২০ কোটি টাকা পর্যন্ত ১ হাজার ৬৭২টি হিসাবে জমা ২৯ হাজার ৬৫৬ কোটি টাকা। ২০ কোটির বেশি থেকে ২৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ১ হাজার ১৫৪টি হিসাবে জমা ২৬ হাজার কোটি টাকা। ২৫ কোটির বেশি থেকে ৩০ কোটি টাকা পর্যন্ত ৯০১টি হিসাবে জমা ২৪ হাজার ৮৪৪ কোটি টাকা। ৩০ কোটির বেশি থেকে ৩৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ৪৩৮টি হিসাবে জমা ১৪ হাজার ১২৩ কোটি টাকা। ৩৫ কোটির বেশি থেকে ৪০ কোটি টাকা পর্যন্ত ২৮৫টি হিসাবে জমা ১০ হাজার ৭৩৫ কোটি টাকা। ৪০ কোটির বেশি থেকে ৫০ কোটি টাকা পর্যন্ত ৫৯১টি হিসাবে জমা ২৭ হাজার ৪৭৬ কোটি টাকা। ৫০ কোটি টাকার ওপরে ১ হাজার ৭১৫টি হিসাবে জমা ২ লাখ ২৫৫ কোটি টাকা।
একইভাবে ঋণ হিসাব ও জমা বেড়েছে। গত ৩১ মার্চ পর্যন্ত ১ কোটির বেশি থেকে ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ৮৮ হাজার ১৩৩টি হিসাবে জমা ১ লাখ ৭৮ হাজার কোটি টাকা। ৫ কোটির বেশি থেকে ১০ কোটি টাকা পর্যন্ত ১৩ হাজার ৮৩৭টি হিসাবে ৯৫ হাজার ১৯৯ কোটি টাকা। ১০ কোটির বেশি থেকে ১৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ৬ হাজার ৩০৮টি হিসাবে ৭৬ হাজার কোটি টাকা। ১৫ কোটির বেশি থেকে ২০ কোটি টাকা পর্যন্ত ৩ হাজার ২২৩টি হিসাবে ৫৪ হাজার ৫৪৪ কোটি টাকা। ২০ কোটির বেশি থেকে ২৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ১ হাজার ৬৮২টি হিসাবে জমা ৩৬ হাজার ৯৬৫ কোটি টাকা। ২৫ কোটির বেশি থেকে ৩০ কোটি টাকা পর্যন্ত ১ হাজার ২৩১টি হিসাবে ৩৩ হাজার ৪০৯ কোটি টাকা। ৩০ কোটি টাকার বেশি থেকে ৩৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ৮২৯টি হিসাবে ২৬ হাজার ৬৮৭ কোটি টাকা।
৩৫ কোটি টাকার বেশি থেকে ৪০ কোটি টাকা পর্যন্ত ৬০৮টি হিসাবে ২২ হাজার ৬৯২ কোটি টাকা। ৪০ কোটির বেশি থেকে ৫০ কোটি টাকা পর্যন্ত ৯৫৮টি হিসাবে ৪২ হাজার ৪৬৯ কোটি টাকা এবং ৫০ কোটি টাকার বেশি ৩ হাজার ৫৭টি হিসাবে জমা ৩ লাখ ১০৮ কোটি টাকা। এদিকে গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ঋণ হিসাবের মধ্যে ১ কোটির বেশি থেকে ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ৮৬ হাজার ৬৮টি হিসাবে জমা ১ লাখ ৭৫ হাজার কোটি টাকা। ৫ কোটির বেশি থেকে ১০ কোটি টাকা পর্যন্ত ১৩ হাজার ৭৫৪টি হিসাবে জমা ৯৪ হাজার ৭৮১ কোটি টাকা।
১০ কোটির বেশি থেকে ১৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ৬ হাজার ৭৮টি হিসাবে জমা ৭৩ হাজার কোটি টাকা। ১৫ কোটির বেশি থেকে ২০ কোটি টাকা পর্যন্ত ৩ হাজার ১৩৬টি হিসাবে জমা ৫৩ হাজার কোটি টাকা। ২০ কোটির বেশি থেকে ২৫ কোটি টাকা পর্যন্ত ১ হাজার ৭১১টি হিসাবে ৩৭ হাজার ৪৮৯ কোটি টাকা। ২৫ কোটি টাকার বেশি থেকে ৩০ কোটি টাকা পর্যন্ত ১ হাজার ২৬৭টি হিসাবে ৩৪ হাজার ২৬৯ কোটি টাকা।
৩০ কোটি টাকার বেশি থেকে ৩৫ কোটি টাকার ৮১৭টি হিসাবে ২৬ হাজার ২৪৪ কোটি টাকা। ৩৫ কোটি টাকার বেশি থেকে ৪০ কোটি টাকা পর্যন্ত ৬২৬টি হিসাবে ২৩ হাজার ৩৫৭ কোটি টাকা জমা। ৪০ কোটির বেশি থেকে ৫০ কোটি টাকা পর্যন্ত ৯২৭টি হিসাবে ৪১ হাজার কোটি টাকা এবং ৫০ কোটি টাকার বেশি ৩ হাজার হিসাবে ৩ লাখ ২২৮ কোটি টাকা জমা রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here