উন্নয়ন কাজের শুভেচ্ছা জানাতে বড় ধরনের শো-ডাউন করলেন দলপার চেয়ারম্যান অলি

0
237

সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা, কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি : উন্নয়নমূলক কাজের শেষ প্রান্তে এসে ইউনিয়নবাসীকে শুভেচ্ছা জানাতে বড় ধরনের শো-ডাউন করলেন দলপা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমিনুর রহমান খান পাঠান অলি। শনিবার দুপুরে শতাধিক মোটরসাইকেল বহর নিয়ে নিজ বাড়ি কুনিহাটি গ্রাম থেকে শুরু করেন শো-ডাউন। সেখান থেকে দলপা, ইটাহুতা, আমতলি, চাতল, রামনগর, জল্লী, রামজীবনপুর, ধনিয়াগাও, রঘুনাথপুর, বেখৈরহাটি, হোসেন নগর, ভূঞাপাড়া, দৈলা, ভাদেরা, বুধপাশা হয়ে আবার কুনিহাটি গ্রামে এসে শেষ করেন। প্রায় পাঁচ বছর আগে অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে নির্বাচিত হন তিনি। ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের সচেতন মহল দাবী করে বলেন, চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করারপর তিনি এলাকার রাস্তাঘাট, ব্রীজকালবার্ট নির্মান সহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড সম্পাদন করেছেন। মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভূমি ও গৃহহীনদের নতুন ঠিকানা করে দেয়ার নির্দেশ দিলে চেয়ারম্যান আমিনুর রহমান খান পাঠান অলি সরকারি এই কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে দুইজন ভূমিহীনকে নিজস্ব অর্থে ভূমি ক্রয় করে দেন। এর ফলে এই জমিতে সরকারি অর্থে আধাপাকা ঘর করে দেয়া হয়েছে। যার ভূমি আছে ঘর নেই সেই কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে অত্যান্ত সুনামের সঙ্গে কাজ করেছেন তিনি। কাজের পরিদর্শনে গিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মইন উদ্দিন খন্দকার, গৃহনির্মান কাজ সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্ন হওয়ায় চেয়ারম্যানের প্রতি সন্তোষ প্রকাশ করেন। এছাড়া চেয়ারম্যান আমিনুর রহমান খান পাঠান অলি বয়স্ক, বিধবা, প্রতিবন্ধী ভাতা বিতরনের ক্ষেত্রে অত্যান্ত স্বচ্ছতার সঙ্গে কার্ড করে দিয়েছেন। এছাড়া নতুন মাদ্রাসা মসজিদ নির্মান সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেরও তিনি উন্নয়ন করেছেন। শোডাউন প্রাক্কালে জানতে চাইলে চেয়ারম্যান আমিনুর রহমান খান পাঠান অলি বলেন, উন্নয়ন কাজ করতে গিয়ে কোন রকম অনিয়ম দূর্নীতি করিনি। জনগন যা চেয়েছে সাধ্যমত সততার সঙ্গে করেছি। পাঁচ বছর মেয়াদান্তে জনগণকে শুভেচ্ছা জানাতেই এই শোডাউন করেছি। তিনি বলেন, জনগণের দাবীর প্রেক্ষিতে আবারো তিনি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থী হবেন। তিনি আশা করেন, জনগণ আবারো তাকে ভোট দিয়েই বিজয়ের মালা গলে পড়াবেন।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here